Tue. Dec 10th, 2019

আরামবাগে রাস্তা সম্প্রসারণের কাজে ভাঙা পড়তে পারে বেশ কয়েকটি বিল্ডিং

1 min read

নিজস্ব সংবাদদাতা : আরামবাগের বাসদেবপুর থেকে পল্লীশ্রী পর্যন্ত মাইলখানেক রাস্তা পার হতে সময় লাগে প্রায় এক ঘন্টা। একটাই কারণ, জ্যাম। যান ও জ্যাম জটে আক্রান্ত আরামবাগ। এর থেকে যেন মুক্তি নেই। আরামবাগের পূর্ত দপ্তর(রাস্তা)র সহকারি বাস্তুকার নিরঞ্জন ভড় আরামবাগের ভিতর ফোর লেন করার জন্য দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর আজ যখন টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ করে রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ শুরু করার প্রায় মুখেই, সেসময়ই আরামবাগ বাস স্ট্যান্ড হকার্স মার্কেটের হকাররা স্পষ্ট জানিয়েছেন তারা পৌরসভাকে কড়ায়-গণ্ডায় টাকা গুনে দিয়ে হকার্স মার্কেটের দোকানগুলো নিয়েছেন। এর থেকেই তাদের রুটিরুজি। তাই কোন শর্তেই তারা এই দোকান ঘর ভাঙতে দেবেন না। এদিকে জানা গেছে পল্লিশ্রী থেকে আরামবাগ বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত রাস্তার দুপাশে সরকারি জায়গায় গজিয়ে ওঠা যত বাড়ি, স্টুডেন্ট হোম, হকার্স মার্কেট আছে সেগুলি ভাঙ্গা হবে। এ বিষয়ে পূর্ত দপ্তরের রোডস এর সহকারি বাস্তুকার নিরঞ্জন বাবু জানান তাঁরা এখনো কাউকেই নোটিশ দেননি, কিন্তু রাস্তা সম্প্রসারণ এর কাজে পল্লীশ্রী থেকে আরামবাগ বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে জবরদখল করে থাকা স্টুডেন্ট হেলথ হোম, হকার্স মার্কেট এগুলি যতটা প্রয়োজন ততটা ভাঙতেই হবে। এ বিষয়ে তিনি জানান জনস্বার্থ যেখানে জড়িত বৃহৎ স্বার্থের কথা ভেবে রাস্তাকে গুরুত্ব দেওয়া হবে, নাকি বাধাকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে। তিনি জানান তিনি একজন সরকারী দায়িত্বপ্রাপ্ত। প্রকল্পটিও সরকারের। সুতরাং তাঁর যা করণীয় তিনি তা করবেন। যদিও পৌরপ্রধান স্বপন কুমার নন্দী জানান তিনি এ বিষয়ে সকলকে নিয়ে আলোচনার ভিত্তিতে বৃহৎ স্বার্থে যাতে একটি সুষ্ঠু উপায় বের হয় সে বিষয়ে যাবতীয় সদর্থক ভূমিকা গ্রহণ করবেন। এত অত্যন্ত ভালো কথা। কারণ প্রত্যেক দিন ঘন্টার পর ঘন্টা জ্যামে আটকে থাকতে হয় মানুষদের। যেখানে একটা বাইপাস রাস্তা নেই, সেখানে এই ফোরলেনকে স্বাগত জানানো সকলেরই উচিত। এই রাস্তা হলে মানুষ স্বস্তিতে পথ চলতে পারবে। সুতরাং দেখার ফোরলেন তৈরি করতে পূর্ত দপ্তরকে প্রশাসন বিশেষ করে পৌর প্রশাসন আদৌ কতটা সহযোগিতা করে। অনেকেরই আশঙ্কা, সামনেই পৌর নির্বাচন তাই হয়তো পৌর নির্বাচনের আগে পর্যন্ত টানাপোড়েন চলতেই থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Powered by KTSL TECHNOLOGY SERVICES PVT LTD(7908881231).